জেনারেটর/অল্টারনেটর

বৈদ্যুতিক হাউজ ওয়্যারিং Learn advance house wiring


বিদ্যুৎ সরবরাহ দেয়ার উদ্দেশ্যে তারের সুশৃঙ্খল সাজানাে ব্যবস্থাই হলো ওয়্যারিং। কাজের ধরন, জায়গা এবং খরচ বুকে বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন ধরনের ওয়্যারিং ব্যবহার করা হয়। সাধারণ অর্থে ওয়্যারিং হলাে তারের সুশৃঙ্খল সাজানাে ব্যবস্থা। বৈদ্যুতিক লেডিসমূহ যেমন- বৈদ্যুতিক পাখা, বাতি, মােটর ইত্যাদিতে বিদ্যুৎ সরবরাহ দেয়ার উদ্দেশ্যে বৈদ্যুতিক সরঞ্জামসমূহ যেমন- সুইচ, হােল্ডার, তার ইত্যাদির মাধ্যমে যে সুশৃঙ্খল বৈদ্যুতিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়, তাকে বৈদ্যুতিক ওয়্যারিং বা ওয়্যারিং wiring বলে। বৈদ্যুতিক ওয়্যারিংকে প্রধানত তিন ভাগে ভাগ করা যায়। যথা

  • অভ্যন্তরীণ ওয়্যারিং (Internal Wiring)
  • ওভারহেড ওয়্যারিং (Overhead wiring)
  • আন্ডারগ্রাউন্ড ওয়্যারিং (Underground Wiring)

Over Head and Underground ওয়্যারিং, ঘরের বাইরে উচ্চ ভােল্টেজ সরবরাহের কাজে ব্যবহার কথা হয় কিন্তু অভ্যন্তরীণ ওয়্যারিং বাড়ি-ঘর, কল-কারখানা, অফিস-আদালত প্রভৃতি ছাদ বিশিষ্ট জায়গার ভেতরে বিদ্যুৎ সরবরাহের কাজে ব্যবহৃত হয়। সব মনের অভ্যন্তরীণ ওয়্যারিংয়েই ইনস্যুলেট করা তার ব্যবহার করা হয়। শুধু তাৱেৱ গঠন প্রণালী কিংবা দেয়াল বা ছাদের সাথে এদের এটে রাখার তারতম্য অনুসারে ওয়্যারিংয়ের নামকরণ বিভিন্ন রকম হয়েছে। যেমন, ওয়্যারিং, কালে কাঠের ব্যাটেন ব্যবহার করা হলে তাকে বলে ব্যাটেন ওয়্যারিং, কনুইট ব্যবহার করা হলে বলা হয় ইট ওয়্যারিং। আবার কইট দেয়াল বা ছাদের ভেতরে থাকলে বলা হয় কনসি কস্তুইট কি বাইরে থাকলে | বলা হয় সাৱফে ওইট ইত্যাদি।

এছাড়াও আরও কয়েক রকমের ওয়্যারিং আছে। যেমন- ক্লিট ওয়্যারিং, কেসিং ওয়্যারিং, এম.এস ওয়্যারিং ইত্যাদি। বৈদ্যুতিক ওয়্যারিং বা তারের সংযােগ সহকারে বিদ্যুৎ শক্তি সরবরাহ করা হয়। বিভিন্ন অংশ নিয়েই ওয়্যারিং ব্যবস্থা গঠিত হয়, যথা – (ক) মেইন সুইচ (Main Switch) (খ) ডিস্ট্রিবিউশন বাের্ড (Distribution Board) (গ) সাৰ-ফিডার (sub-Feeder) (ঘ) সাৰ ডিস্ট্রিউিশন বাের্ড (sub Distribution Board) (ঙ) লােজ সার্কিট বা ফাইনাল সাব-সাকিট Load Circuit or Final Sub Cricit) কোন স্থানে বৈদ্যুতিক ওয়্যারিং করার সময় নিম্নলিখিত বিষয়গুলোর প্রতি লক্ষ রাখতে হয়।

(১) ওয়্যারিং, মজবুত হওয়া চাই যাতে দীর্ঘকাল স্থায়ী হয়। (২) ওয়্যারিং এমন হওয়া চাই যাতে গ্রাহকের কোনরূপ বিপদের আশঙ্কা না থাকে।

(৩) ক্যাবল, সুইচ, হােন্ডার প্রভৃতির বিদ্যুৎ পরিবহন ক্ষমতা উপযুক্ত হওয়া চাই।

(৪) আর্থিং ব্যবস্থা ভাল হওয়া চাই।

(৫) ওয়্যারিং সুদৃশ্য হওয়া চাই।

(৬) বাতি, পাথ প্রভৃতির অবস্থান যথাস্থানে বজায় রেখে ওয়্যারিং এর নকশা এমন হওয়া চাই যাতে সবচেয়ে কম।

তার বা ক্যাবল প্রয়ােজন হয়। ওয়ারিং এর অর্থ (Meaning of Wiring) ওয়ারিং শব্দের অর্থ হল তার ব্যবস্থা বা তার সাজানাে। বিধি মােতাবেক বিদ্যুৎ সরবরাহ দেয়ার উদ্দেশ্যে তারের। সুল সাজানাে ব্যবস্থাকে ওয়্যারিং বলে। ওয়্যারিং এর অর্থ হলাে তারের (Wire) সুশৃঙ্খল লে-আউট (Layout অথবা বৈদ্যুতিক লেডিসমূহকে সরবরাহ বা । সাপ্লাই-এর সাথে সঠিক পদ্ধতিতে এবং বৈদ্যুতিক বিধি অনুযায়ী সংযােগ করা। বাড়ি-ঘর, কল-কারখানা, অফিস-আদালত প্রভৃতি ছদি বিশিষ্ট জায়গার ভেতরে যে ওয়্যারিং করা হয়, তাকে হাউ ওয়্যারিং বলে। এক্ষেত্রে সুইচ, হােল্ডার, তার ইত্যাদির মাধ্যমে যে সুশৃঙল বৈদ্যুতিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয় তা ঘরের অভ্যন্তরে করা হয় বলে একে অভ্যন্তরীণ ওয়্যারিং বলা হয়। ইলেকট্রিক্যাল ওয়্যারিং এর প্রকারভেদ-

হাউজ ওয়্যারিং প্রধানত দুপ্রকার। যথা:

(ক) সারফেস ওয়্যারিং (Surface Wiring)

(খ) কনফিল্ড ওয়্যারিং (Concealek! Wiring)

সারফেস ওয়্যারিং surface wiring

যে ওয়ারিং দেয়ালের সারফেস দিয়ে নেয়া হয়, অর্থাৎ যে ওয়্যারিং দেখা যায় তাকে সারফেস ওয়্যারিং বলে। সারফেস ওয়্যারিং আবার পাঁচ প্রকার। যথা –

  • ব্যাটেন ওয়্যারিং (Battern Wiring)
  • কনুইট ওয়্যারিং (Conduit Wiring)
  • ক্লিট ওয়্যারিং (Cleat Wiring,
  • কেসিং, ওয়্যারিং (Casing Wiring],
  • এম. এস. ওয়্যারিং (M.S. Wiring),
  • হুক ওয়্যারিং (Hook Wiring],
  • চ্যানেল ওয়্যারিং (Chanel Wiring)।

কনসিল্ড ওয়্যারিং Concealed wiring

দেয়ালের মধ্যে খাঁজ বা চ্যানেল (Channel] কেটে গ্যালভানাইজ করা লােহা বা ইস্পাতের অথবা পি.ভি.সি. কভুইট বা পাইপ বসিয়ে এর ভেতর দিয়ে তার টেনে অথবা উন্নতমানের পি.ভি.পি, তার সরাসরি চ্যানেলের মধ্যে বসিয়ে প্লাস্টার দ্বারা ঢেকে দিয়ে যে ওয়্যারিং করা হয়, তাকে কী ওয়ারিং বা লুকানাে ওয়ারিং বলে। কনসিল্ড ওয়্যারিং দুপ্রকার। যথা

(১) কনসিল্ড কনুইট ওয়্যারিং (Concealed Conduit Wiring),

(২) কনসিল্ড ওয়্যার ওয়্যারিং (Concealed Wire Wiring) বা প্লাস্টারে নিমজ্জিত ওয়্যারিং (Under

চ্যানেল ওয়্যারিং channel Wiring

পি.ভি.সি. দ্বারা তৈরি লম্বা ফাপা চ্যানেল ব্যবহার করে যে ওয়্যারিং করা হয়, তাকে চ্যানেল ওয়্যারিং বলে। চ্যানেলের দুটি অংশ থাকে। একটি অংশ এক দিকে খােলা লম্বা বাক্সের মতো এবং অপরটি লম্বা পি.ভি.সি. পাত বা ব্যাটেনের মতাে। ব্যাটেনের মতাে অংশটি রাওয়াল প্লাগের সাহায্যে ডু দ্বারা দেয়ালে আটকে তার উপর দিয়ে তার টেনে ওয়্যারিং করা হয়। এরপর বাক্সের মতাে অংশটি দিয়ে ওয়্যারিংকে ঢেকে দেওয়া হয়। এ ধরনের ওয়ারিং দেখতে খুবই সুন্দর। কারণ এক্ষেত্রে বাইরে থেকে কোনো তার দেখা যায় না। শুধু সালা প্লাস্টিকের চ্যানেল দেখা যায়। তারের সংখ্যা ও সাইজ অনুযায়ী চ্যানেলের সাইজ 31, 1, 2″ ইত্যাদি হয়। সারফেস কভুইট ওয়্যারিং |Surface Conduit wiring); গ্যালভানাইজ করা লােহা বা ইস্পাতের অথবা পি, ভি. সি কভুইট বা পাইপ ব্যবহার করে এ ধরনের ওয়্যারিং করা। হয়। মধ্যম ভােল্টেজের (Medium Voltage, 440 ) সকল ইনস্টলেশনে, ওয়ার্কশপে, কল-করাখানায়, অডিটোরিয়ামে এবং সিনেমা হল ইত্যাদিতে কভুইট ওয়্যারিং ব্যবহৃত হয়। কভুইট ওয়্যারিং সারফেস এবং কনসিন্ড উভয় ধরনেরই হতে পারে। যদিও এটা ব্যয়বহুল, তথাপি এটি সুবিধাজনক। সারফেস কভুইট ওয়্যারিং-এর সুবিধা :

১) সহজে নষ্ট হয় না।

২) রক্ষণাবেক্ষণের ঝামেলা কম।

৩) ক্যাবলে আঘাত লাগার সম্ভাবনা নেই।

৪) আগুন লাগার সম্ভাবনা নেই।

৫) ট লালন নিক্সন না গন মন ।

বাড়ি-ঘর, কল-কারখানা, অফিস-আদালত প্রভৃতি ছদি বিশিষ্ট জায়গার ভেতরে যে ওয়্যারিং করা হয়, তাকে হাউ ওয়্যারিং বলে। এক্ষেত্রে সুইচ, হােল্ডার, তার ইত্যাদির মাধ্যমে যে সুশৃঙল বৈদ্যুতিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয় তা ঘরের অভ্যন্তরে করা হয় বলে একে অভ্যন্তরীণ ওয়্যারিং বলা হয়। ইলেকট্রিক্যাল ওয়্যারিং এর প্রকারভেদ-

(List of Residential Wiring) হাউজ ওয়্যারিং প্রধানত দুপ্রকার। যথা:

(ক) সারফেস ওয়্যারিং (Surface Wiring)

(খ) কনফিল্ড ওয়্যারিং (Concealek! Wiring)

সারফেস ওয়্যারিং surface wiring

যে ওয়ারিং দেয়ালের সারফেস দিয়ে নেয়া হয়, অর্থাৎ যে ওয়্যারিং দেখা যায় তাকে সারফেস ওয়্যারিং বলে। সারফেস ওয়্যারিং আবার পাঁচ প্রকার। যথা –

ব্যাটেন ওয়্যারিং (Battern Wiring)

কনুইট ওয়্যারিং (Conduit Wiring)

ক্লিট ওয়্যারিং (Cleat Wiring

কেসিং, ওয়্যারিং (Casing Wiring)

এম. এস. ওয়্যারিং (M.S. Wiring)

হুক ওয়্যারিং (Hook Wiring)

চ্যানেল ওয়্যারিং (Chanel Wiring)

সারফেস Conduit ওয়্যারিং করার নিয়ম বা পদক্ষেপ

প্রথমেই প্রয়ােজনমতাে কইট, কাঠের গুলি বা রাওয়েল প্লাগ, স্যাডল ইত্যাদি সংগ্রহ করে নিতে হয়। এরপর দেয়াল, ছাদ বা মেঝের যে জায়গা দিয়ে ওয়্যারিং যাবে তার নকশা দেখে চিহ্নিত করে নিতে হয়। ৪০ থেকে 90 সেমি দূরে দূরে কাঠের গুলি বা রাওয়েল প্লাগ বসিয়ে তার উপর আটকাতে হয়। কিন্তু ব্যান্ড, এলবাে, সকেট প্রভৃতি হতে 10 থেকে ১৫ সেমি ব্যবধানে স্যাডল লাগাতে হয়। কনুইট বসানাের পর এর ভিতর দিয়ে তার টানতে হয়। তার টানার জন্য প্রথমে একটি ভি,আই, তার কনুইটের ভিতর ঢুকানাে হয়। পরে জিআই তারের সাথে ওয়্যারিং-এর তার বেঁধে জিআই তার ধরে টেনে তা কইটের ভিতর ঢুকানাে হয়। উক্ত জিআই তারকে ফিস ওয়্যার বলে। এতে সমস্ত ইনস্টলেশনে আর্থের সাথে সংযােগ রাখতে হয়। এর জন্য কনুইটের গা বরাবর একটি তামার কিংবা ইস্পাতের তৈরি আর্থিং তার নিয়ে যেতে হয়।

এ তারটি মাঝে মাঝে কইটের সাথে এঁটে দিতে হয়। আথিং তারের সাইজ প্রত্যেক কন্ডাক্টরের সাইজের অর্ধেক অপেক্ষা কম হওয়া উচিত নয়। ওয়ারিং শেষ হয়ে গেলে কনুইট ও ফিটিংসগুলােকে ভালােভাবে রং করে দিতে হয়, যাতে এগুলােতে মরিচা ধরতে না পারে। চিত্রে জয়েন্ট বক্স থেকে বিভিন্ন দিকে কনুইটের ভিতর দিয়ে তার টেনে নেয়ার ব্যবস্থা দেখানাে হয়েছে। কনুসিন্ড ওয়্যারিং । দেয়ালের মধ্যে খাজ বা চ্যানেল কেটে উন্নতমানের পি. ভি, সি, তার সরাসরি চ্যানেলের মধ্যে বসিয়ে প্লাস্টার দ্বারা ঢেকে দিয়ে যে ওয়্যারিং করা হয়, তাকে কনসিল্ড ওয়্যারিং বলে। এ ধরনের ওয়্যারিংয়ে তার বা ক্যাবল সরাসরি প্লাস্টারের নিচে থাকে বলে সম্প্রতি বাংলাদেশে এ ধরনের ওয়্যারিং-এর ব্যবহার দেখা যাচ্ছে। সৌখিন অথচ মধ্যম আয়ের লােকজন পাকা ও আধা পাকা বাড়িতে এমনকি কিছু কিছু সরকারি অফিস-আদালতেও কসিন্ড ওয়্যার ওয়্যারিংয়ের প্রচলন দেখা যাচ্ছে। এ ধরনের ওয়্যারিংয়ের প্রধান অসুবিধা হলাে কোনাে কারণে তারের। ইনসুলেশন নষ্ট হয়ে আর্থ ফল্ট হলে দেয়ালে।

কনসিল্ড ওয়্যারিং করার নিয়ম বা পদক্ষেপ

  • প্রথমে প্রয়ােজনমতাে কাঠের গুলি, স্যাডল, ফু ইত্যাদি সংগ্রহ করে নিতে হয়। ছাদ বা মেঝে ঢালাইয়ের পূর্বেই নকশা দেখে নির্ধারিত স্থানে কভুইট বসিয়ে নিতে হয়।
  • এরপর দেয়ালের যে জায়গা দিয়ে ওয়্যারিং যাবে নকশা দেখে তা চিহ্নিত করে চ্যানেল কেটে তাতে কভুইট বসাতে হয় এবং প্রায় ৮০ থেকে ৯০ সে.মি. দূরে দূরে কাঠের গুলি বসিয়ে তার উপরে স্যাডল দ্বারা সুইট আটকাতে হয় কিন্তু বেন্ড এলবাে, সকেট ইত্যাদির দুই দিকে ৩০ সে.মি বা আরাে কম ব্যবধানে স্যাডল লাগাতে হয়। পাইপগুলাে বসানাে হয়ে যাওয়ার পরই প্লাস্টার দ্বারা ঢেকে দিতে হয়।
  • কচুইট বসানাের পর এর ভিতর দিয়ে তার টানতে হয়। প্রথমে একটি জিআই তার কইটের ভিতরে ঢুকানাে হয়। পরে গি, আই, তারের সাথে ওয়্যারিংয়ের তার বেঁধে জি আই তার ধরে টেনে তা কইটের ভিতর ঢুকানাে হয়।
  • এ ওয়্যারিংয়ে সুইচ বাের্ত, সইফ রেগুলেটর, ওয়াল সকেট প্রভৃতি দেয়ালের মধ্যে বসানাে থাকে। কেবল সুইচ বা রেগুলেটরের নব (Knob) বাইরে থেকে পরিচালনা করা যায়।
  • এ ধরনের ওয়্যারিংয়ে কনুইট পাইপের সাইজ প্রয়োজনের তুলনায় কিছু বড় হওয়া উচিত।

ব্যাটেন ও কেসিং ওয়্যারিং Batten and Casing Wiring

ব্যাটেল ওয়্যারিং এ ধরনের ওয়্যারিংয়ে কাঠের ব্যাটেন ব্যবহার করা হয় বলে একে ব্যাটেন ওয়্যারিং বলে। আমাদের দেশে শতকরা প্রায় ৬০ ভাগ বাড়ি-ঘরেই এ ওয়্যারিং ব্যবহৃত হয়। কারণ নিচাপের (Low Voltage, 250 V ইনস্টলেশনে এবং স্বল্প ব্যয়ের জন্য এটি সুবিধাজক। ব্যাটেন ওয়্যারিং করার নিয়ম বা পদক্ষেপ। ব্যাটেন ওয়্যারিংয়ে করণীয় কাজগুলােকে নিচে ধারাবাহিকভাবে বর্ণনা করা হলাে

  • প্রথমে প্রয়ােজন অনুযায়ী কাঠের ব্যাটেন, কাঠের গুলি (Wooden Plug], রাওয়েল প্লাগ (Rawl Plug) | কর্নার, রাউন্ড ব্লক, জয়েন্ট বক্স, সুইচ বাের্ড ইত্যাদি প্রস্তুত বা সংগ্রহ করে নিতে হয়।
  • এরপর দেয়াল বা ছাদের যে জায়গা দিয়ে ওয়ারিং যাবে তা চিহ্নিত করে নিতে হয় (নকশা দেখে)।
  • 60 থেকে 70 সেমি দূরে দূরে দেয়ালের উপরে বা ছাদের নিচে কাঠের গুলি বা রাওয়েল প্লাগ বসাতে হয় ।
  • কাঠের গুলির যে পাশটির ক্ষেত্রফল বড় সে পাশটি দেয়ালের ভিতরের দিকে থাকবে।
  • কাঠের গুলি বসানাের পর ছিদ্রের ফাঁকা জায়গা সিমেন্ট ও বালির মিকচার দ্বারা ভরে দিতে হয়। অতঃপর কাঠের গুলির উপর দিয়ে পেরেকের সাহায্যে ব্যাটেন বসাতে হয়।
  • এরপর ব্যাটেনে লিংক-ক্লিপ লাগাতে হয়। ব্যাটেনের প্রান্ত হতে 5 সেমি এবং মাঝখানে 12 থেকে 14 সে মি। | পর ই তারকাটা দ্বারা লিংক লাগাতে হয়।
  • ব্যাটেনের উপর লিংক লাগানাের পর এগুলােকে স্কু দ্বারা দেয়ালে আঁটা কাঠের গুলির সাথে আটকাতে হয়।
  • এরপর ব্যাটেনের উপর প্রয়ােজনীয় পি.ভি.সি., টি.আর.এস., এম,এস, ইত্যাদি তার বা ক্যাবল বসিয়ে ক্লিপ দ্বারা লিংকগুলােকে আটকিয়ে দিতে হয়। একই লিংক-ক্লিপ দিয়ে দুই গাছার বেশি টুইন কোর ক্যাবল আটকানাে উচিত নয়।
  • নিরাপত্তার জন্য সুউচ বাের্ডের অবস্থান সবসময় 1.25 মিটার থেকে 1.5 মিটার অর্থাৎ 4 থেকে 5 ফুট উঁচুতে দরজার পাশে হওয়া উচিত।

কেসিং ওয়্যারিং

এ ধরনের ওয়্যারিংয়ে ক্লিটের জায়গায় দেয়ালের কাঠের গুলির উপর খাঁজ কাটা শক্ত কাঠের সরু খাজে ভিতর দিয়ে তার টেনে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সরু কাঠের তক্তাকে কেসিং বলে। সাধারণত কেসিং-এ দুটি কেসিংগুলি সাধারণত 4 হতে। 10 ফুট লম্বা হয়। তবে 20 ফুট পর্যন্ত লম্বা কেসিংও পাওয়া যায় । তাঁর টানার পর কেসিং-এর সমান চওড়া কিন্তু খুব পাতলা লম্বা কাঠের ফালি দিয়ে তার ঢেকে দেওয়া, এর নাম ক্যাপিং (Capping । বর্তমানে খাঁজ কাটা সরু তার পরিবর্তে খাঁজ কাটা পি. ভি. সি কেসিং ব্যবহৃত হচ্ছে এবং তার টানার পর পি. ভি. সি ব্যাটেন দিয়ে ঢেকে দেওয়া হচ্ছে।

ইনডোর ওয়্যারিং Indoor wiring

সাধারণত গৃহের ভিতরে যে সকল ওয়্যারিং করা হয় তাকে ইনডাের ওয়্যারিং বলে। ইনডাের সকল প্রকার ওয়্যারিং এ ইনসুলেটেড ক্যাবল প্রয়ােজনীয় সাইজের তারের সাহায্যে ওয়্যারিং করা হয়। আভ্যন্তরীণ ওয়্যারিং সাধারণত বাড়িঘর, কলকারখানা, অফিস আদালত প্রভৃতি ছাদ বিশিষ্ট জায়গায় করা হয়। তবে তার দেওয়ালের বা ছাদের সাথে এঁটে রাখার তারতম্য অনুসারে ওয়্যারিং এর নামকরণ করা হয়েছে যেমন- কাঠের ব্যাটেন ব্যবহার করা হলে তাকে ব্যাটেন ওয়্যারিং ড্যানেল ব্যবহার করা হলে তাকে চ্যানেল ওয়্যারিং পাইপের ভিতর দিয়ে তার নিয়ে গেলে তাকে কভুইট ওয়ারিং আবার এই কন্ডুইট দেওয়ালের ভিতর নিয়ে গেলে তাকে কনসিন্ড কস্তুইট ওয়ারিং এবং দেওয়ালে বাহির দিয়ে নিয়ে গেলে তাকে সারফেস কভুইট ওয়ারিং বলে।

আউটডাের ওয়্যারিং Outdoor WIring

সাধারণত ঘরের বাইরে খােলা আকাশের নিচে অথবা ঘরের বাইরে মাটির নিচে দিয়ে যে ওয়্যারিং করা হয় তাকে আউট ডাের ওয়্যারিং বলে। যেমন- মিটার থেকে পােলের দূরত্ব বেশি হলে তবে কাটেনারি ওয়্যারিং, অস্থায়ী জায়গার জন্য ক্লিট ওয়্যারিং এবং কোথাও কোথাও মাটির নিচ দিয়ে ইনসুলেটেড ক্যাবল নিয়ে যাওয়া হয় এবং ট্রান্সমিশন ও ডিস্ট্রিবিউশনের জন্য খােলা ‘তারের সাহায্যে মাথার উপর দিয়ে ওয়্যারিং করা হয় তবে ইদানিং ডিস্ট্রিবিউশন কাজে ইনসুলেটেড ক্যাবলের সাহায্যে ঘরের বাইরে খােলা আকাশের নিচে মাথার উপর দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

অল্টারনেটরের এক্সাইটেশন পদ্ধতি principle of electrical alternator excitation

High Rising Residential Building Layout Design

High Rising Commercial Building Layout Design

Draw the commercial residential building Layout Design

Electrical Building Symbol

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
All Right Reserve EletroTech and Hosted and Authorized by levibuyonl.us
bursa escort - izmit escort - mersin escort - eskişehir escort - mersin escort - mersin escort - eskişehir escort